|

গঙ্গাচড়ায় কীটনাশকে রোগাক্রান্ত হচ্ছেন কৃষক

প্রকাশিতঃ ৬:০৫ অপরাহ্ন | মার্চ ১২, ২০১৯

আব্দুল আলীম প্রামানিক, গঙ্গাচড়া (রংপুর) প্রতিনিধিঃ রংপুরের গঙ্গাচড়ায় ফসলে প্রতি বছর প্রায় দুই কোটি টাকার কীটনাশক ব্যবহার করা হচ্ছে। ফলে কৃষকরা আক্রান্ত হচ্ছেন নানা রোগে। তাদের সচেতন করার কোন উদ্যোগ নেই।

গঙ্গাচড়া কৃষি সম্প্রসারন বিভাগ থেকে মাঝে মধ্যে কৃষকদের এ ব্যাপারে পরামর্শ দেয়া হলেও তা যথেষ্ট নয় বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।

কৃষি বিভাগসূত্রে জানা যায়, গঙ্গাচড়ায় প্রতি বছর বিপুল পরিমাণ ধান, পাট, গম, সরিষা, আলু, ভুট্টা, শাক-সবজির চাষ করা হয়ে থাকে। এসব ফসল আবাদের সময় ব্যাপক হারে কীটনাশক ব্যবহার করা হয়। গঙ্গাচড়া সদর ইউনিয়নের নবনীদাস গ্রামের কৃষক নজরুল ইসলাম জানান, ধান চাষের সময় প্রতিবিঘা জমিতে গড়ে ২শ গ্রাম করে তরল কীটনাশক ব্যবহার করা হয়।

এতে এক মৌসুমে সবজি চাষের ক্ষেত্রে প্রতি ৩/৪ দিন অন্তর কীটনাশক স্প্রে করা হয়। এতে এক মৌসুমে সবজি ক্ষেতে বিঘা প্রতি তরল কীটনাশকের দরকার হয় গড়ে ১ কেজি।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, এ উপজেলায় প্রতি বছর প্রায় দুই কোটি টাকার কীটনাশক ব্যবহার করা হয়। সবচেয়ে বেশি কীটনাশক ব্যবহার করা হয় ধান ক্ষেতে। এছাড়া পাট, আলু, আমের মুকুলসহ শাক-সবজিতে মাত্রাতিরিক্ত কীটনাশকের ব্যবহারের ফলে মানুষ প্রতিনিয়ত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন।



কারণ প্রতি বছর যে বিপুল পরিমাণ শাক-সবজি উৎপাদন হয় তার বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই মাত্রাতিরিক্ত কীটনাশক ব্যবহার করা হচ্ছে। শুধু তাই নয় অতিরিক্ত কীটনাশক ব্যবহারের ফলে ফসলী জমিও হারাচ্ছে উর্বরতা। কৃষকদের পর্যাপ্ত ধারণা না থাকায় তারা দিনদিন এর প্রতি নির্ভরশীল হয়ে পড়ছেন।

কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, তারা জমিতে ইচ্ছামতো কীটনাশক ব্যবহার করে থাকেন। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম জানান, অতিরিক্ত কীটনাশক ব্যবহার না করার জন্য কৃষকদের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও প: প: কর্মকর্তা গওসুল আজিম চৌধুরী বলেন, কীটনাশক মানবদেহের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। দীর্ঘদিন ধরে যদি কেউ কীটনাশক মিশ্রিত শাক-সবজি খান তাহলে ওই ব্যক্তি প্রথমেই পেটের পীড়ায় আক্রান্ত হবেন। এ জন্য কীটনাশক ব্যবহারের ব্যাপারে নীতিমালা থাকা প্রয়োজন।

দেখা হয়েছে: 34
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল মোবাইল ০১৬১১-৫১৫৩২০
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ aporadhbartamofosal@gmail.com
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।