|

বরগুনায় গণধর্ষনের ঘটনায় পলাতক আসামী আলমগীর পটুয়াখালীতে আটক

প্রকাশিতঃ ১০:৫৪ অপরাহ্ন | মে ১৫, ২০১৯

বরগুনায় গণধর্ষনের ঘটনায় পলাতক আসামী আলমগীর পটুয়াখালীতে আটক

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ চলতি বছরের ২৭ এপ্রিল বরগুনার বেতাগী থানার আলোচিত গণধর্ষন ঘটনায় জড়িত ও মামলার অন্যতম আসামী আলমগীর হোসেন(৩৫)কে পটুয়াখালী র‌্যাব-৮এর ক্যাম্পের সদস্যরা গ্রেফতার করেছে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার ভোর রাতে মির্জাগঞ্জ উপজেলার তোফলাখালী এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে আলমগীর ঢাকায় পলাতক ছিল। সোমবার ঢাকা থেকে বাড়ীতে ফিরছিল।

পটুয়াখালী র‌্যাব-৮ এর কোম্পানী কমান্ডার পুলিশের সিনিয়র এএসপি সোয়েব আহম্মেদ খান মঙ্গলবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে জানান, বরগুনা বেতাগি থানায় গণধর্ষনের ঘটনায় জড়িত মোঃ মানিক ও আলমগীর গাঁ ঢাকা দেয়। র‌্যাবের তল্লাশি অভিযানে র‌্যাব-৮ এর সদস্যরা গত ১০ মে ঢাকা থেকে মানিককে গ্রেফতার করে জেলে পাঠায়। এ অভিযানের ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার গভীর রাতে আলমগীরকে মির্জাগঞ্জ উপজেলা দোফরাখালী থেকে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আলমগীর ধর্ষনের ঘটনা স্বীকার করেছে। ঘটনার পর তিনি ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় পলাতক ছিল। সোমবার ঢাকা থেকে নিজ বাড়ী বেতাগীর ছোপখালীতে ফিরছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে গত ১০ মে একই মামলার আসামী মোঃ মানিককে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করে থানায় সোপার্দ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ২৭ এপ্রিল বরগুনার বেতাগী থানার পুটিয়াখালী স্লুইজ ঘাট এলাকায় এ গনধর্ষনের ঘটনা ঘটে। পহেলা মে ধর্ষিতার চাচাতো ভাই বাদী হয়ে বেতাগী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।

দেখা হয়েছে: 15
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল মোবাইল ০১৬১১-৫১৫৩২০
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকঃ ফয়সাল হাওলাদার মোবাইল ০১৭৩২-৩৭৯৯৮২
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ aporadhbartamofosal@gmail.com
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।