|

জীবন্ত ছেলে মেয়েকে পুড়িয়ে মারলো বাবা

প্রকাশিতঃ 4:07 pm | May 07, 2019

জীবন্ত ছেলে মেয়েকে পুড়িয়ে মারলো বাবা

অনলাইন বার্তাঃ জীবন্ত ছেলে মেয়েকে পুড়িয়ে মারলো বাবা। বাড়ির অমতে অন্য জাতের ছেলেকে বিয়ে করায় মেয়েসহ তার স্বামীকে ঘরে আটকে আগুন জ্বালিয়ে দেয় তরুণীর পরিবার। আগুনে ওই তরুণীর শরীরের ৭০ শতাংশ পুড়ে যায়। গত রবিবার তার মৃত্যু হয়েছে। আশঙ্কাজনক পরিস্থিতিতে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তার স্বামীকে। এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের মহারাষ্ট্রে।

দেশটির পুলিশ জানায়, বেশ কয়েক মাস ধরে রুক্মিনী ভারতী (১৯) নামের ওই তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল মঙ্গেশ রণসিংয়ের (২৩)। কিন্তু তাদের সম্পর্ক নিয়ে আপত্তি তুলেছিল রুক্মিনীর পরিবার।

গত অক্টোবর মাসে পরিবারের অমতে পাসি সম্প্রদায়ের সদস্য মঙ্গেশকে বিয়ে করেন লোহার সম্প্রদায়ভুক্ত রুক্মিনী। এর পর থেকেই ওই দম্পতিকে হুমকি দিতে শুরু করে মেয়েটির পরিবার।

গত ৩০ এপ্রিল মঙ্গেশের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হলে রেগে আহমেদ নগরের পারনান তালুকের নিঘোজ গ্রামে বাপের বাড়ি চলে যান রুক্মিনী। পরের দিন রাগ কমলে তিনি স্বামীকে ফোন করে তাকে নিয়ে যেতে বলেন। কিন্তু সে বাড়িতে গেলে মঙ্গেশের সঙ্গে রুক্মিনীকে ফিরতে দেননি পরিবারের সদস্যরা।

আপত্তি করলে দম্পতিকে একটি ঘরে আটকে রেখে বাইরে থেকে তালা বন্ধ করে দেন রুক্মিনীর বাবা রাম ভারতী। এরপর তার দুই কাকা সুরেন্দ্র ভারতী ও ঘনশ্যাম সরোজ সেই ঘরে আগুন জ্বেলে দেয়।

জ্বলন্ত ঘরে বন্দি দম্পতির চিৎকার শুনে তাদের উদ্ধার করেন প্রতিবেশীরা। পুলিশের সাহায্য নিয়ে তাদের পুনের সাসুন জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে সুরেন্দ্র ও ঘনশ্যামকে। কিন্তু ঘটনার পরে গা-ঢাকা দিয়েছেন রাম ভারতী।