|

টংগিবাড়ীতে জামায়াতে তাবলীগের বিশাল মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

প্রকাশিতঃ ৮:৩৫ অপরাহ্ন | জুলাই ১০, ২০১৯

টংগিবাড়ীতে জামায়াতে তাবলীগের বিশাল মানববন্ধন ও স্মারকলিপি

সামসুদ্দিন তুহিন, টংগিবাড়ী (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ টংগিবাড়ীতে ভ্রান্ত আকিদা পোষণকারী ওলামা বিদ্ধেষী এবং ২০১৮ সালের ১লা ডিসেম্বর টঙ্গি বিশ্ব ইজতেমা মাঠে নিরীহ ওলামা মাশায়েখ, মাদ্রাসা ছাত্র ও তাবলীগের সাথীদের উপর বর্বরোচিত হামলাকারী ও মুসলমানদের মাঝে বিভেদ সৃষ্টিকারী ভ্রান্ত সা’দ পন্থিদের মুন্সীগঞ্জের বালিগাও এ কথিত জেলা ইজতেমা বন্ধের দাবীতে জামায়াতে তাবলীগের হক পন্থি আলেম ওলামা ও সাধারন জনগণের শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন।

১০জুলাই বুধবার সকাল ১০সময় টংগিবাড়ীতে মাওলানা ইলিয়াস( রঃ) এর তাবলীগি নিয়ম অনুসরন কারি দারুল উলুম দেওবন্দ এর আলেম ওলামা ও সাধারন জনগণের সমন্বয়ে জামায়াতে তাবলীগের হক পন্থিদের এক বিশাল মানববন্ধন পালন করা হয়।

টংগিবাড়ী উপজেলা কমপ্লেক্স মাঠ হতে উপজেলা প্রধান গেইট হয়ে প্রধান রাস্তার সাইটে দাড়িয়ে সা’দ পন্থিদের ভ্রান্ত ধারনা, তাদের দেয়া নবী ও ওলামা মাশায়েখ বিদ্ধেষী বিভিন্ন বক্তব্য ব্যানার ফেস্টুন ও প্লাকার্ডের মাধ্যমে তুলে ধরেন উপজেলার প্রায় এক হাজার আলেম ওলামা মাদ্রাসা ছাত্র ও সাধারন জনগণ। উপস্থিতি সকলেই অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ ভাবে এই মানববন্ধন করেন।

এসময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কওমি মাদ্রাসা আঞ্চলিক শিক্ষা বোর্ডের সিনিয়র সহ-সভাপতি মুন্সীগঞ্জ শাখা ও মোস্তফাগঞ্জ মাদ্রাসা নায়েবে মুহতামিম মাওলানা সাইফুল্লাহ,বাংলাদেশ কওমি মাদ্রাসা আঞ্চলিক শিক্ষা বোর্ডের সহ-সভাপতি মুন্সীগঞ্জ শাখা ও সোনারং আদর্শ মহিলা মাদ্রাসার মুহতামিম কাজি মোস্তাফিজুর রহমান,সেরাজাবাদ মাদ্রাসা শায়খুল হাদীস মাওলানা ইসমাইল, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন নেতা মাওলানা তোফায়েল আহমেদ, শায়খুল হাদীস মাওলানা রফিকুল ইসলাম নদবী,টংগিবাড়ী উপজেলা কমপ্লেক্স মসজিদের ইমাম মাওলানা আবুল কালাম আজাদ,আড়িয়ল বাদশাহী মাদ্রাসা মোহতামিম মাওলানা আঃহান্নান, হাফেজ মাওলানা মুফতী মিসবাহুদ্দীন, মাওলানা ওবাইদুল্লাহ,মাওলা আসলামসহ বিভিন্ন মসজিদ মাদ্রাসার শিক্ষক ছাত্র ও জামায়াতে তাবলীগের ইলিয়াস (রহঃ) অনুসারীবৃন্দ।

পরে মানবন্ধন এর নেতৃত্ব দানকারী মাওলা সাইফুল্লাহ তার বক্তব্যে বলেন বর্তমানে ইসলাম ধ্বংশের জন্য একটি চক্র কাজ করছে, সেই ধারাবাহিকতায় বিশ্বব্যাপি শান্তিপ্রিয় তাবলীগ জামায়াত ধ্বংশের জন্য ভারতের দিল্লীর বিতর্কিত ও ভ্রান্ত মাওলানা সা’দ কান্ধলভি কোরআন হাদিস বিরোধী বক্তব্য প্রদান করেছেন, এখনও করছেন,সারা পৃথিবীতে মুসলমানদের মধ্যে এই বক্তব্যের কারণে এক অস্থিরতা ও অশান্তির সৃষ্টি হয়েছে, বিশ্বের বড় আলেম ওলামারা সেই বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে।

টংগিবাড়ীতে জামায়াতে তাবলীগের বিশাল মানববন্ধন ও স্মারকলিপি

কিন্তু এমতাবস্থায় অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় যে মাওলানা সা’দ এর কিছু অন্ধ অনুসারী ও দুনিয়া প্রেমী কিছু আলেম তাবলীগ জামায়াত হতে বাহির হয়ে গিয়ে ‘এতায়াত জামায়াত (সা’দ পন্থী)’নাম ধারন করে তাবলীগের নামে আলাদা একটি তাবলীগ জামায়াত গ্রুপ বানিয়ে সারাদেশে বিশৃঙ্খলা মারামারি ও মসজিদে মসজিদে জবরদস্তি করে অশান্তির সৃষ্টি করছে।

তারা ভ্রান্ত মাওলানা সা’দ এর খিলাফত এই দেশে প্রতিষ্ঠিত করতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে যা সম্পূর্ণ শরীয়ত পরিপন্থি,জেলা ইজতেমার নামে সা’দ পন্থিরা সাধারন ও স্মরলমনা মুসলমানদের একত্রিত করে সা’দ সাহেবের ভুল চিন্তাধারা ও ধর্মের অপব্যাখ্যা, কোরআন হাদীস বহির্ভূত কথা প্রচার করে ঈমান আকিদা নষ্ট করছে।

এহেন পরিস্থিতিতে টংগিবাড়ী উপজেলাধীন বালিগাও এর নয়াগাও মাদ্রাসায় আগামী ২২,২৩,২৪,আগস্ট ২০১৯ইং জেলা বিত্তিক ইজতেমা করার প্রস্তুতি নিয়েছে, আমরা সেটা বন্ধ করার জন্য মানববন্ধন করতেছি।পরে তিনি ঈমান আকিদা রক্ষা ও দেশবাসীর শান্তির জন্য দোয়া ও মোনাজাত করে ১১টা সময় মানবন্ধন সমাপ্ত ঘোষণা করেন।

এরপর তাদের মধ্যথেকে মাওলানা সাইফু্ল্লাহ এর নেতৃত্বে সোনারং আদর্শ মহিলা মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা কাজি মোস্তাফিজুর রহমান,উপজেলা কমপ্লেক্স মসজিদের ইমাম আবুল কালাম আজাদসহ আট দশজনের একটি প্রতিনিধি দল উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসাম্মৎ হাসিনা আক্তার বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন, এসময় সেখানে উপজেলা চেয়ারম্যান জগলুল হালদার ভূতু উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য মাওলানা সা’দ সাহেব বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে নবী ও ওলামা মাশায়েখ বিরোধী বক্তব্যের কারনে সারা পৃথিবীতে অস্থিরতা বিরাজ করছে,বাংলাদেশে ও এর ব্যত্যয় নয়, বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জায়গায় তাবলীগের দুই গ্রুপ সংঘর্ষ হয়ে আসছে, তারমধ্যে ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে টঙ্গি বিশ্ব ইজতেমা মাঠে তাবলীগের দুইগ্রুপে যে ভয়ানক রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বাধে সেটা উল্লেখযোগ্য এতে অনেক মানুষ হতাহত হয়,রক্তে রাঙান্বিত হয় টঙ্গি ইজতেমা ময়দান ও এর আশপাশ।

এরপর থেকে সারাদেশে ইলিয়াস (রহঃ) এর তাবলীগের নিয়ম অনুসরনকারী আলেম ওলামা ও সাধারণ জনগণ একদিকে ও বিতর্ক সৃষ্টিকারি মাওলানা সা’দ সাহেব এর অনুসরনকারিরা আরেকদিকে।সাধারণ জনগণ এর বিরুদ্ধে অবস্থান নেন ফলে দেশের বিভিন্ন জেলায় তাবলীগের দুই গ্রুপের অস্থিরতার কথা বিবেচনা করে প্রশাসন সমোয়োচিত হস্তক্ষেপে বিতর্কিত সা’দ পন্থিদের জেলা ইজতেমা বন্ধ করে দেওয়া হয়। তাছাড়া বিশ্ব ইজতেমার পূর্বে বাংলাদেশের কোন জেলায় ইজতেমা অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত নেই।

দেখা হয়েছে: 516
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল মোবাইল ০১৬১১-৫১৫৩২০
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ aporadhbartamofosal@gmail.com
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।