|

পঞ্চগড়ে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৭

প্রকাশিতঃ ৪:৩০ অপরাহ্ন | নভেম্বর ০৯, ২০১৯

পঞ্চগড়ে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৭

মোহাম্মদ সাঈদ পঞ্চগড় থেকেঃ পঞ্চগড়ে যাত্রীবাহী মিনি বাসের চাপায় নব দম্পতিসহ সাতজন অটোবাইক আরোহী নিহত হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে পঞ্চগড়-বাংলাবান্ধা মহা সড়কের মাগুরমাড়ি চৌরাস্তা আমতলী এলাকায় এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটে।

নিহতরা হলেন, তেঁতুলিয়া উপজেলার ডাকবদলি মাঝিপাড়া এলাকার মজিবুল হকের ছেলে লাবু ইসলাম (২৯) ও তার নববধু মুক্তি বেগম (১৯), সাতমেড়া ইউনিয়নের চেকরমারী এলাকার জয়নালের ছেলে অটো চালক রফিক (২৮), রায়পাড়া এলাকার মফিজ আলীর ছেলে মাকুদ হোসেন (৪৫), অমরখানা ইউনিয়নের মৃত বসির উদ্দীনের ছেলে আকবর আলী (৬৫) এবং তার স্ত্রী নূরীমা (৫৫) ও নার্গিস আক্তার। ঘটনার পর থেকেই মহাসড়ক অবরোধ করে রেখেছে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।

এদিকে উদ্ধার কাজে অংশ নেওয়া হাইওয়ে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও সংবাদকর্মীদের ওপর হামলা করেছে বিক্ষুব্ধরা। পরে অতিরিক্ত পুলিশ ও বিজিবি ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পঞ্চগড় থেকে ছেড়ে আসা কাজী ব্রাদার্স (ঢাকা মেট্রো-জ-০৪-৮৮২৬) নামের তেঁতুলিয়া গামী একটি যাত্রীবাহী মিনিবাস অটোবাইকটি চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই পাঁচজন নিহত হয় এবং গুরুতর আহত অবস্থায় নববধু মুক্তি বেগম ও আকবর আলীকে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকেও মৃত ঘোষণা করে।

নিহত মুক্তি বেগমের দুলাভাই শহীদুল ইসলাম জানান, মাত্র এক মাস পূর্বে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলার ডাকবদলি মাঝিপাড়া এলাকার মজিবুল হকের ছেলে লাবু ইসলামের সাথে আমার শ্যালীকার পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের এক মাস না পেরুতেই তাদের এই আকস্মিক মৃত্যুতে পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

এ বিষয়ে ফায়ার সার্ভিসের উপ পরিচালক ওয়াদুদ হোসেন বলেন, মরদেহ গুলো উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

দেখা হয়েছে: 94
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন
  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ [email protected]
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।