|

বিড়ির উপর কর প্রত্যাহারের দাবীতে নীলফামারীতে মানববন্ধন

প্রকাশিতঃ ৫:৩৬ অপরাহ্ন | মে ০৯, ২০১৯

বিড়ির উপর কর প্রত্যাহারের দাবীতে নীলফামারীতে মানববন্ধন

নীলফামারী প্রতিনিধিঃ চলতি অর্থ বছরের(২০১৯-২০২০)বাজেটে বিড়ির উপর সম্পুর্ণরুপে কর প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন করেছে বিড়ি ভোক্তা পক্ষ। বুধবার (০৮মে)দুপুরে নীলফামারী সদর উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এতে বক্তব্য দেন, বিড়ি ভোক্তা পক্ষ নীলফামারী উপজেলা কমিটির সভাপতি বুলবুল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক অমুল্য রায়, জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম।

মানবববন্ধন শেষে নীলফামারী-২ আসের সংসদ সদস্য ও সাবেক সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নুর বরাবর স্মারক লিপি প্রেরণ করেন আয়োজক সংগঠনের নেতারা। স্মারকলিপিটি গ্রহণ করেন সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত সহকারী তরিকুল ইসলাম।

স্মারকলিপিতে কর প্রত্যাহার ছাড়াও ভারতের ন্যায় বিড়ি শিল্পকে কুটির শিল্প ঘোষণা, ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকোর ষড়যন্ত্র বন্ধ, সিগারেটের দাম বৃদ্ধি এবং কোন সরকারী আমলা বিদেশী বহুজাতিক কোম্পানীর ডাইরেক্টর পদে না রাখার দাবী উল্লেখ করা হয়।

মানববন্ধনে বিড়ি ভোক্তা পক্ষ জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম জানান, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আমলে বিড়িতে কোন প্রকার কর ছিলো না, এখন বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্র পরিচালনা করছেন সফলভাবে। এখনো আমরা বিড়ির উপর কোন কর দেখতে চাই না।

তিনি অভিযোগ করেন, বিদেশী বহুজাতিক কোম্পানী ষড়যন্ত্র করে বিড়ির দাম বৃদ্ধি করে আমাদের জোড়পুর্বক ধুমপান করাতে চাচ্ছে। সারাদেশে ভোক্তা পক্ষের এক শ্লোগান গরীব মানুষের বিড়ির দাম কমান’ শ্লোগানে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

দেখা হয়েছে: 20
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল মোবাইল ০১৬১১-৫১৫৩২০
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকঃ ফয়সাল হাওলাদার মোবাইল ০১৭৩২-৩৭৯৯৮২
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ aporadhbartamofosal@gmail.com
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।