|

শরীয়তপুর বুড়িরহাট শুরু হয়েছে ৩ দিনব্যাপী জেলা ইজতেমা

প্রকাশিতঃ ৩:৩৫ অপরাহ্ন | নভেম্বর ০৯, ২০১৯

শরীয়তপুর বুড়িরহাট শুরু হয়েছে ৩ দিনব্যাপী জেলা ইজতেমা

মোঃ মহসিন রেজা,শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ শরীয়তপুরে তিন দিনব্যাপী শুরু হয়েছে তাবলীগ জামায়েতের জেলা ইজতেমা ৭ নভেম্বর হতে ৯ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে এ ইজতেমা।

শরীয়তপুর সদর উপজেলার বুড়ির হাট উচ্চ বিদ্যালয়ের পাশের মাঠে ৭ নভেম্বর বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজের পর আময়ানের মধ্যে দিয়ে শুরু হয়েছে জেলা ইজতেমার মূল কার্যক্রম। ইজতেমা উপলক্ষে শরীয়তপুরের বিভিন্ন উপজেলা থেকে এসেছেন হাজারো মূসল্লী।

ইজতেমায় মূসল্লীদের সুবিধার্থে রয়েছে মেডিকেল টিম, পুলিশ ক্যাম্পসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও সেচ্ছাসেবীদের বিভিন্ন টিম। শনিবার আখেরী মোনাজাতের মধ্যে দিয়ে শেষ হবে ইজতেমার কার্যক্রম।

জেলা ইজতেমা উপলক্ষে ইজতেমা ময়দান পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের, জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন, জেলার রাজনীতিকসহ স্থানীয় ওলামাগন ও অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় জেলা পুলিশ সুপার ছাড়াও ইজতেমা ময়দান পরিদর্শনে গিয়েছিলেন জেলা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(প্রশাসন ও অপরাধ)মোহাম্মদ আল মামুন শিকদার, ডিআইও-১, মোঃ আজহারুল ইসলাম,
পালং মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আসলাম উদ্দিন।

জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের ইজতেমা ময়দান পরিদর্শনে গিয়ে জানান, জেলা ইজতেমা সফল করতে সব ধরনের ব্যাবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।

ইজতেমা ময়দান পরিদর্শনের সময় শরীয়তপুর জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন বলেন, ইজতেমায় আগত সকল মুসল্লিদের নিরাপত্তার জন্য ইজতেমা ময়দান এবং তার আসে পাশে সাদা ও পুলিশের পোষাকে ৩ শতাধীকের বেশি আইনশৃংঙ্খলা বাহিনী নিয়োজিত থাকবে।

ইজতেমা এলাকায় একটি পুলিশ ক্যাম্প বসানো হবে। সেখানে ইজতেমায় আগত মুছল্লিরা কোনো প্রকার সমস্যা পড়লে অভিযোগ করতে পারবেন।

দেখা হয়েছে: 84
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ [email protected]
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।