|

সোশ্যাল মিডিয়ায় ঈদ ও চাঁদ নিয়ে সাধারণ মানুষ কী বলছে?

প্রকাশিতঃ ১১:২৪ অপরাহ্ন | জুন ০৪, ২০১৯

সোশ্যাল মিডিয়ায় ঈদ ও চাঁদ নিয়ে সাধারণ মানুষ কী বলছে

অনলাইন বার্তাঃ আজ বুধবার সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো ঈদুল ফিতর উদযাপন করছে। গতকাল সেখানে শাওয়ালের চাঁদ দেখা গেছে। সেখান থেকে ঈদ উদযাপনের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করছেন প্রবাসীরা। দেশবাসীকে ঈদ মোবারকবাদ জানাচ্ছেন।

জানা গেছে, পার্শ্ববর্তী অঞ্চল ভারতের পশ্চিমবঙ্গে শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে। আগামীকাল সেখানে ঈদুল ফিতর পালিত হবে।

এদিকে রাত ৮টা পর্যন্ত দেশের কোথাও থেকে চাঁদ দেখার খবর না পাওয়া যাওয়ায় ঈদের দিনক্ষণের ঘোষণা দিতে পারছিলেন না জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি।

এরইমধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চাঁদ না দেখা নিয়ে এবং আগামীকাল ঈদ উদযাপন করা হবে কিনা সে বিষয়ে ধুম্রজালের সৃষ্টি হয়।

এ নিয়ে ফেসবুকে অনেকেই নিজেদের অভিব্যক্তি প্রকাশ করতে থাকেন।

এরইমধ্যে মঙ্গলবার রাত ৮টা ৫০ মিনিটে চাঁদ দেখা কমিটির পক্ষ থেকে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাভোকেট শেখ মোঃ আব্দুল্লাহ ঘোষণা দেন, দেশের কোথাও থেকে শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। সে হিসাবে রমজান ৩০ টি পূর্ণ করে আগামী ৬ জুন বৃহস্পতিবার পবিত্র ঈদুল ফিতর পালিত হবে।

এ ঘোষণার পর ফেসবুকে অনেকেই স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

কুয়েত প্রবাসী লিয়াকত হোসেন লিখেছেন, বাংলাদেশের চাঁদ দেখা কমিটির সিদ্ধান্ত মনগড়া নয়, হাদিস সম্মত সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। সৌভাগ্যবান আমার দেশবাসী, এক রোজা বেশি পেলাম।

ইউসুফ আলী লিখেছেন, আলহামদুলিল্লাহ, আরেকটি রহমতের রোজা পেলাম, ঈদ তো একদিন আসবেই।

নূর শওকত আলী লিখেছেন, আরও একদিন পেলাম আমরা। ঈদ ৬ জুন হবে। শুকরিয়া।

ধূপ ছায়া নামের আইডি লিখেছেন, আগামীকাল ঈদ না। সবাই তারাবীহ নামাজের জন্য প্রস্তুত হন।

আশিক ইমরান নামের একজন এ বিষয়ে একটি সমস্যার কথা জানিয়েছেন।

তিনি লিখেছেন, রোজা রাখার শুরুতে চাঁদ দেখা নিয়ে ধুম্রজালের সৃষ্টি হয়েছে। এখন আবার চাঁদ দেখা নিয়ে ধোঁয়াশা দেখা যাচ্ছে! চাঁদ দেখা কমিটির কাজ কি ঠিক মতো করছে? এর মধ্যে শুনলাম আমাদের মসজিদ থেকে এতেকাফের লোকও বাড়ি চলে গেছেন। অনেক মসজিদে আগামীকাল ঈদ জানিয়ে মাইকে ঘোষণাও দিয়েছেন।

ঈদের চাঁদ দেখা না দেখার সিদ্ধান্তে বিলম্ব হওয়ায় মাহবুব আলম তার টাইমলাইনে লিখেছেন, চান্দের খবর নাই! পরশু (বৃহস্পতিবার) ঈদ। নাড়ির টানে ফাঁকা ঢাকা দেখব কাল। এটাই আপাতত ঈদের খুশি আমার জন্য।

আগামীকাল ঈদ ভেবে যারা ফেসবুকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তাদের নিয়েও রসিকতা করেছেন কেউ কেউ।

মেহনাজ আহমেদ লিখেছেন, যারা যারা ইনবক্সে আগামীকালের ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তারা শুভেচ্ছা ফেরত নেন।

জাহেদুল ইসলাম জনি লিখেছেন, কতো এমবি খরচ করে মানুষকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছিলাম, মোবাইল কম্পানি থেকে টাকা ফের চাই।

মুশফিক লিখেছেন, ঘুমানোর আগে সাহরির জন্য মোবাইলে দেয়া এলার্মটা আবার অন করে নিয়েন সবাই।

মোহনা বিনতে মান্নান লিখেছেন, আম্মু কত কী রেঁধে ফেলেছেন, কাল ঈদ ভেবে।কিন্তু কাল তো রোজা রাখতে হবে। এসব খাবারের কি হবে?

নিশি আহমেদ লিখেছেন, তারপর বল আপুরা, কে কে ঈদের রান্না অর্ধেক করে, সাহরি রান্না করতে গেছ?

ঈদযাত্রায় জ্যামে পড়ে কাওসার আল হাবীব লিখেছেন, বগুড়ার পরেও বিশাল জ্যাম!চলুক, কাল তো আর ঈদ না।

দেখা হয়েছে: 41
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল মোবাইল ০১৬১১-৫১৫৩২০
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকঃ ফয়সাল হাওলাদার মোবাইল ০১৭৩২-৩৭৯৯৮২
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ aporadhbartamofosal@gmail.com
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।