|

স্কুলছাত্রী উত্যক্তের ঘটনায় বাবাসহ বখাটে ছেলে গ্রেফতার

প্রকাশিতঃ ১২:২২ পূর্বাহ্ন | জুন ১২, ২০১৯

স্কুলছাত্রী উত্যক্তের ঘটনায় বাবাসহ বখাটে ছেলে গ্রেফতার

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) থেকেঃ বরিশালের আগৈলঝাড়ায় স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত এবং জোর করে ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করার প্রতিবাদ করায় বখাটেদের হামলায় ওই স্কুল ছাত্রীর বাবা-মা ও দুই চাচী গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি। ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলায় বখাটে ও তাদের বাবাসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আফজাল হোসেন জানান, উপজেলার সুজনকাঠী গ্রামের জাকির হোসেন বেপারী মেয়ে সরকারী গৈলা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী শারমিন আক্তারকে স্কুলে যাওয়া আসার পথে বিভিন্ন সময় উত্যক্ত করে আসছিলো একই এলাকার আলতাফ মোল্লার ছেলে আশিক ওরফে লাদেন মোল্লা।

সম্প্রতি আশিক জোরপূর্বক ওই ছাত্রীর ছবি তুলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে। শারমিন তার পরিবারকে এ ঘটনা জানলে সোমবার বিকেলে ছাত্রীর বাবা জাকির বেপারী ও মা শাপলা বেগম আশিককে ছবি তোলার ঘটনা জিজ্ঞাসা করায় আশিক তাদের মারধর করে আহত করে।

তাদের মারধরে বাধা দিতে গেলে শারমিনের চাচী পারুল বেগম ও বেবী বেগমকেও মারধর করে আহত করে লাদেন ও তার লোকজন। এ ঘটনায় শারমিনের চাচা আজিজ মোল্লা সোমবার রাতে বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন।

ওই রাতেই অভিযান চালিয়ে পুলিশ অভিযুক্ত আশিক ওরফে লাদেন, তার বাবা আলতাফ মোল্লা, জাহাঙ্গীর মোল্লার ছেলে আনিস মোল্লা, ভাই আরিফ মোল্লাকে পুলিশ সোমবার রাতে গ্রেফতার করেছে।

অন্যদিকে উপজেলার তালতা গ্রামের মৃত হাজী মকবুলের ছেলে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন মামলায় (দ:বি: ১৮৬/১৭) আসামী রবিউল ইসলামকে পুলিশ সোমবার রাতে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতদের গতকাল মঙ্গলবার সকালে বরিশাল আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

দেখা হয়েছে: 48
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল মোবাইল ০১৬১১-৫১৫৩২০
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ aporadhbartamofosal@gmail.com
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।