ইবিতে ক্রীড়াক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা

ইবি প্রতিনিধিঃ
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের খেলাধুলায় বিশেষ সাফল্যের জন্য আজ ২৭ নভেম্বর প্রশাসন ভবনের কনফারেন্স রুমে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।আন্তঃ বিশ্ববিদ্যালয় ফুটবল,বাস্কেটবল,হ্যান্ডবল,ব্যাডমিন্টন এবং অ্যাথলেটিক প্রতিযোগিতায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে সাফল্য বয়ে নিয়ে আসার জন্য শিক্ষার্থীদেরকে এই সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

ছাত্র উপদেষ্টা প্রফেসর ড.মোঃ রেজওয়ানুল ইসলামের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড.মোঃ শাহিনুর রহমান,বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ট্রেজারার প্রফেসর ড.মোঃ সেলিম তোহা,বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রীড়াশিক্ষা বিভাগের পরিচালক ড.মোহাম্মদ সোহেল।

প্রফেসর ড.মোঃসেলিম তোহা বলেন,”ক্রীড়াঅঙ্গনের সফলতায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় আজ অগ্রদূত।এক বছরে ৫ টি ইভেন্টে সফলতা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য এক গৌরবান্বিত অধ্যায়।ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যেই খেলোয়ারদের দক্ষতা বৃদ্ধিসহ সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধির জন্য অনেকগুলো পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক প্রতিবন্ধকতা বা সীমাবদ্ধতা থাকা সত্বেও বর্তমান প্রশাসন খেলোয়াড়দের সর্বোচ্চ সুযোগ-সুবিধা প্রদানে বদ্ধপরিকর।ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের খেলোয়াড়েরা ক্রীড়াঅঙ্গনে যে সাফল্য বয়ে নিয়ে আসছে তা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তিকে শতগুণ বাড়িয়ে দিয়েছে “।

প্রধান অতিথি প্রফেসর ড.মোঃ শাহিনুর রহমান বলেন,” ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় এমন একটি জনপদে অবস্থিত যা অনেকের কাছেই অজানা।প্রান্তিক জনপদের এই বিশ্ববিদ্যালয়কে সকলের সামনে পরিচয় করিয়ে দিয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের খেলোয়ারেরা।ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের খেলোয়াড়েরা শুধুমাত্র খেলোয়াড় নয় তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্পদ।খেলোয়াড়দেরকে এইভাবে সংবর্ধনা দিতে পেরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আনন্দিত। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ইতোমধ্যেই খেলোয়াড়দের উন্নতির জন্য অনেক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে এবং করবে”।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে খেলোয়াড়সহ কোচদেরকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।বাংলাদেশ মহিলা দলের সদস্য ফাহিমা খাতুন কে বিশেষ সম্মাননা দেওয়া হয়।
এছাড়া সংবর্ধনা শেষে খেলোয়াড়দের জন্য মধ্যাহ্ন ভোজের আয়োজন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *