|

ঈশ্বরগঞ্জে গলাকাটা আতঙ্ক প্রতিরোধে মাইকিং

প্রকাশিতঃ ৭:৫৩ অপরাহ্ন | জুলাই ২২, ২০১৯

ঈশ্বরগঞ্জে গলাকাটা আতঙ্ক প্রতিরোধে মাইকিং

উবায়দুল্লাহ রুমি, ঈশ্বরগঞ্জঃ ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে গলাকাটা আতঙ্ক প্রতিরোধে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে উপজেলাব্যাপি একযোগে মাইকিং চলছে। সোমবার (২২ জুলাই) থেকে শুরু হওয়া মাইকিং গুজবজনিত পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত জনস্বার্থে এ প্রচারাভিযান চলবে বলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) জানান।

‘পদ্মা সেতু নির্মাণে মানুষের মাথা লাগবে’ এমন গুজবে সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে হতাহতের ঘটনা ও ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে রটনায় সাধারণ মানুষ যাতে বিভ্রান্ত না হয় সেজন্য উপজেলা প্রশাসন প্রচারণার উদ্যোগ গ্রহণ করে।

ইতোমধ্যে পৌরসদরসহ প্রত্যেক ইউনিয়নে মাইকিং অব্যাহত রাখতে সংশ্লিষ্ট চেয়ারম্যানদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

পাশাপাশি, গুজবকে কেন্দ্র করে অপরিচিত সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে গণপিটুনিতে হত্যা বা আহত না করে আইন নিজের হাতে তুলে না নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের (০১৭৩৩৩৭৩৩৩৬) ও ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) (০১৭১৩৩৭৩৪৩৫) মোবাইলে জানাতে বলা হয়েছে।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আহম্মেদ কবীর হোসেন জানান, একটি কুচক্রী মহল বর্তমানে দেশে চলমান গুজবকে কেন্দ্র করে তাদের স্বার্থ হাসিলে ব্যস্ত। আর সাধারণ মানুষ যাতে গুজবে কান না দেয় সেজন্যই মাইকিং করা হচ্ছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) উম্মে রুমানা তুয়া জানান, গলাকাটা গুজবে ঈশ্বরগঞ্জে যাতে কোনো হতাহতের ঘটনা না ঘটে;জনমনে যাতে বিরুপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি না হয় সেজন্য মানুষকে সচেতন করতে মাইকিংয়ের পাশাপাশি ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে প্রত্যেক মসজিদে নামাজের পর সংশ্লিষ্ট ইমামদের গুজবের ব্যাপারে বক্তব্য রাখতে বলা হয়েছে।

দেখা হয়েছে: 1690
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন
  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ [email protected]
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।