|

ওকে ক্রসফায়ার দিয়ে মেরে ফেলুন কোন সমস্যা হবে না

প্রকাশিতঃ 10:50 pm | December 26, 2018

অনলাইন বার্তাঃ

ক্রসফায়ার দিয়ে হত্যা করার নির্দেশ দেয়ার ফোনালাপ ফাঁস হওয়ায় বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছেন ভারতের কর্নাটক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামী। পুলিশ অফিসারকে নিজ দলের স্থানীয় নেতার খুনিকে ‘নির্দয়ভাবে’ মেরে ফেলার নির্দেশ দেয়ার সময় ভিডিও রেকর্ডারে ধরা পড়েছেন তিনি। খবর এনডিটিভির।

ভিডিওতে মুখ্যমন্ত্রীকে বলতে শোনা যায় শুনুন, উনি (এইচ প্রকাশ) অত্যন্ত ভালো মানুষ ছিলেন। আমি জানি না তাঁকে এইভাবে কেন হত্যা করল। কিন্তু যে এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত তাকে খুঁজে বের করে ক্রসফায়ার দিয়ে নির্দয়ভাবে মারুন। আমি বলছি। আমি বলছি, তাতে কোনও সমস্যা হবে না।

এক স্থানীয় সাংবাদিকের তোলা ভিডিওতে তাঁর এই বার্তা ধরা পড়ে যায়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই বিতর্কিত মন্তব্য ছড়িয়ে পড়ার পর তিনি সমালোচিত হতে থাকেন সব মহল থেকেই। সেই সমালোচনার উত্তর দিতে গিয়ে কুমারস্বামী বলেন, ‘এটি একটি আবেগের বিস্ফোরণ ছাড়া আর কিছুই নয়।

আত্মপক্ষ সমর্থন করতে গিয়ে কুমারস্বামী বলেন, এটাকে আমার নির্দেশ বলে ধরে নেওয়া ভুল হবে। আমি প্রকাশের ওইভাবে মৃত্যুর খবর পেয়ে অত্যন্ত আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিলাম। তারা (হত্যাকারীরা) এর আগে দুটি খুনের জন্য জেলে গিয়েছিল। দু’দিন আগেই জামিনে ছাড়া পেয়ে জেল থেকে বেরোয়। তারপরই এই ঘটনা। জেল থেকে বেরিয়েই আরেকজনকে মেরে দিল ওরা। জামিনের সম্পূর্ণ ফায়দা তুলল।

তাঁর ঘনিষ্ঠ নেতাদের গলাতেও কুমারস্বামীর কথারই প্রতিধ্বনি শোনা যায়। তাঁরা বলেন, এইচ প্রকাশের মৃত্যুর ঘটনায় এতটাই আবেগ প্রবণ হয়ে পড়েছিলেন কুমারস্বামী, যে, রাগ এবং দুঃখ মিশ্রিত বোধই তাঁর ভিতর থেকে ওই কথাগুলো বের করে এনেছিল।

তবে ‍এসব কথা মানতে নারাজ মানবাধিকার কর্মীরা। হত্যার নির্দেশ দেয়ার কুমারস্বামীর বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে মামলা করেছেন কর্নাটকের মানবাধিকার সংস্থা পিপলস ইউনিয়ন ফর সিভিল রাইটস।