|

কেড়ে নেওয়া হলো বিতর্কিত ডিসির শুদ্ধাচার পদক

প্রকাশিতঃ ৩:২৫ অপরাহ্ন | অগাস্ট ২৬, ২০১৯

কেড়ে নেওয়া হলো বিতর্কিত ডিসির শুদ্ধাচার পদক

অনলাইন বার্তাঃ নারী অফিস সহকারীর সঙ্গে অশোভন ভিডিও প্রকাশের ঘটনায় জামালপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) আহমেদ কবীরকে প্রত্যাহার করে জনপ্রশাসনে ওএসডি করা হয়েছে। সেখানে পরিকল্পনামন্ত্রীর পিএস মোহাম্মদ এনামুল হককে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

আর কবীর আহমেদের বিরুদ্ধে ১০ কর্মদিবসে তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্মসচিবকে (মাঠ প্রশাসন) প্রধান করে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানিয়েছেন, তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থাসহ সম্ভব সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শুদ্ধাচার পদকপ্রাপ্ত ডিসি আহমেদ কবীরের পদক প্রত্যাহার করা হয়েছে।

ফরহাদ হোসেন বলেন, ডিসি অনৈতিক কাজ করেছেন। প্রাথমিক তদন্তের ভিত্তিতে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। অধিকতর তদন্তের ভিত্তিতে পরবর্তী সময়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পাশাপাশি যে নারীর নাম এসেছে, তাকেও তদন্তের আওতায় আনা হবে।

তিনি আরও বলেন, ‘একজন ডিসি জেলার জন্য অনুকরণীয়। তার কাছ থেকে এরকম অনৈতিক কর্মকাণ্ড কাম্য নয়। তার বিরুদ্ধে তদন্তের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ভবিষ্যতে ডিসি নিয়োগের ক্ষেত্রে নৈতিকতা বিবেচনা করা হবে বলেও জানান ফরহাদ হোসেন।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ৪ মিনিট ৫৮ সেকেন্ড এবং পরে ২৪ মিনিট ৫৮ সেকেন্ডের দুটি ভিডিওতে জামালপুরের জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীরকে তার নারী অফিস সহকারীর সঙ্গে অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখা গেছে। ভিডিও ফাঁস হওয়ার পর তা নিয়ে সমালোচনার ঝড় শুরু হয়েছে। একজন ডিসির এহেন আচরণের কারণে প্রশাসন বেশ বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছে। সচিবালয়ে এ নিয়ে দিনভর সমালোচনা চলছে।

গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে খন্দকার সোহেল আহমেদ নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে জেলা প্রশাসকের আপত্তিকর ভিডিওটি পোস্ট করা হয়। যদিও বিষয়টি অস্বীকার করে ঘটনাটি ‘সাজানো’ বলে দাবি করেছেন জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীর।

দুই জেলায় নতুন ডিসি: চুয়াডাঙ্গার জেলা প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের উপসচিব মো. নজরুল ইসলাম সরকার এবং খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস।

চুয়াডাঙ্গার জেলা প্রশাসক গোপাল চন্দ্র দাসকে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের উপসচিব এবং খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল ইসলামকে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব হিসেবে বদলি করা হয়েছে।

ইত্তেফাক

দেখা হয়েছে: 165
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল মোবাইল ০১৬১১-৫১৫৩২০
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ aporadhbartamofosal@gmail.com
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।