|

চাঁদপুরে তাবলীগ জামাতের সা’দ পন্থীদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সমাবেশ

প্রকাশিতঃ 7:43 pm | December 07, 2018

মাসুদ হোসেন, চাঁদপুর:
টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা ফেতনা সৃষ্টিকারী ও সন্ত্রাসী হামলাকারীদের গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে আজ শুক্রবার (৭ ডিসেম্বর) বাদ জুমা মহামায়া বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ ঈদগাহ্ মাঠে বিভিন্ন এলাকার জামে মসজিদের ইমাম, মুসল্লি ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

গত ১ ডিসেম্বর টঙ্গী বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে ছাত্র, আলেম, ওলামা ও তাবলীগ ভাইদের উপর বর্বরচিত হামলা নৃশংস হত্যা কান্ডের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশটি সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে।

সমাবেশে ফরিদ উদ্দিন মাসউদ, ওয়াসিকুল ইসলাম, খান শাহাবুদ্দিন নাসিম, কাজী এরতেজাসহ তাবলীগে ফাটল সৃষ্টিকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করে বক্তব্য রাখেন, আল জামেয়াতুল ইসলামিয়া শামছুল উলুম মহামায়া মাদ্রাসার মুহাদ্দিস মাওলানা মোহাম্মদ ইদ্রিস, মহামায়া বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব হাফেজ মাওলানা মোঃ সাইফুল ইসলাম, দমকেরগাঁও কাজী বাড়ী জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা শাহাদাত হোসেন, টাওরখিল মজুমদার বাড়ী জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব হাফেজ মাওলানা মোঃ আল আমিনসহ প্রমূখ।

উক্ত বিক্ষোভ সমাবেশে আল জামেয়াতুল ইসলামিয়া শামছুল উলুম মহামায়া মাদ্রাসার মুহাদ্দিস মাওলানা মোহাম্মদ ইদ্রিস তিনি তার বক্তব্যে বলেন, দ্বীনের প্রয়োজনে আমরা এক দেশ থেকে অন্য দেশে ছুটে যাচ্ছি। কিন্তু তাবলীগের কাজকে মুছে দিতে মিশনে নেমেছে সা’দ পন্থিরা। এই দেশ হক্কানি ওলামাদের। আর ইসলাম হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে শান্তি প্রিয় ধর্ম।

যুগ যুগ ধরে ইসলামকে নস্বাৎ করার জন্য বিশ্বের সকল প্রান্তে ষরযন্ত্রকারীরা উঠে পড়ে লেগেছিলো। এখনো সেই চক্রান্তকারীরা মুসলমানদের মধ্যে হানাহানি ও ফেতনা সৃষ্টি করতে হামলাকারীদের মদদ দিয়ে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা শান্তি প্রিয় মুসলমানদের বর্বরচিত হামলা করে যায়। মুসলিম জাতির জন্য অত্যন্ত কলঙ্কময়।

ফরিদ উদ্দিন মাসউদ, ওয়াসিকুল ইসলাম, খান শাহাবুদ্দিন নাসিম, কাজী এরতেজাসহ কুলাঙ্গারদের আটক করে বিচারের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। তাবলীগের মারকাস মসজিদের সুরার সদস্য থেকে বের করে দিতে হবে।

কাকরাইলসহ টঙ্গী ইজতেমা ওলামায়ে আহালে সুরাদের হাতে ন্যাস্ত করতে হবে। ইজতেমায় যে সমস্ত মুসল্লি ও ছাত্রদের উপর ১ ডিসেম্বর সন্ত্রাসী হামলা করে বিভিন্নভাবে ক্ষতির সম্মুখীন ও হাসপাতালে অবস্থিত সকলের সর্বপ্রকার ক্ষতিপূরণ ও চিকিৎসার ভার নিতে হবে।

এছাড়া উক্ত সন্ত্রাসী হামলার মদদদাতা ও হীন চরিতার্থ কুলাঙ্গারসহ চাঁদপুরের মাওলানা আব্দুর রশিদ ও মাওলানা আব্দুল্লাহসহ অভিযুক্তদের তাবলীগ জামাতের সকল কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি দিতে হবে।

ক্যাপশনঃ চাঁদপুরের মহামায়ায় তাবলীগ জামাতের ফেতনা সৃষ্টিকারী সা’দ পন্থীদের দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবীতে বিক্ষোভ সমাবেশে ইমাম ও মুসল্লিদের একাংশ।