|

তাদের কথা বলছি-যারা দু’বেলা পেটপুরে খেতে পায় না

প্রকাশিতঃ 2:34 pm | December 10, 2018

মোঃফয়সাল হাওলাদার, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

নতুন জামা-কাপড় বাদিই দিলাম; যারা নিত্য দিনের ব্যবহারের জন্য সামগ্রী, খাবার ও জামা-কাপড়ই যোগাড় করতে পারে না।

আমরা দেশজুড়ে তাকালেই দেখি অগনিত অসংখ্য বনি আদমের অসহায় চেহারা। যাদের জীবনে আসে না কোনো আনন্দ। যাদের চিত্তে আগুন জ্বলে সর্বক্ষণ। যে জ্বালায় চোখে ঘুম আসে না।

আসুন গরিব ও অসহায়দের দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিই। খোঁজ নিই আমার, আপনার, সবার পাড়া প্রতিবেশির। কেউ শিশু; কেউ কিশোর; কেউ বা আছে যুবক; যারা আবার সঠিক পথ নির্দেশনা না পেয়ে সংসারে গ্লানি টানতে টানতে নিজের পরনের লুঙ্গিই কিনতে পারেনি কিংবা শীত এর কাপড় কিনতে পারেনি।

তাকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেই। যারা বয়স্ক, বয়সের ভাড়ে নুজ্য; শিশু’তাদের দিকে ভালবাসার দৃষ্টিতে তাকাই। এদের কারো প্রতি কোনো করুণা নয়। বরং সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই এগিয়ে যাই। নিজেদের শীত এর কেনাকাটার কিছু অংশ তাদেরকেও দেই।

সমাজের অনেক সম্পদশালী আছেন যারা নিজেদের পরিবারে শীত এর কাপড় কিনার জন্য অনেক অর্থ খরচ করেন। তাদের প্রতি আবেদন- তারা যেন ভুলে না যান দিকভ্রান্ত পথহারা শিশু-কিশোর ছেলে মেয়েদের। ভুলে না যান পাড়া প্রতিবেশী গরিব-দুঃখী অভাবি লোকদের কথা। যাদের পোশাকতো দূরের কথা খাবার কেনার সামর্থ্য নেই।

সমাজের সামর্থ্যবানরা যদি সাধ্যমতো সব অভাবীর কথা ভাবে; এগিয়ে আসে তাদের সহযোগিতায়, তবে এক জন মানুষও শীত এর জন্য কষ্ট পাবে না। কারণ এ গরিব-দুঃখী অভাবি মানুষগুলো এ সমাজ ও রাষ্ট্রেরই অংশ।

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহ আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি মানুষের প্রতি দয়া করে না; আল্লাহর তার প্রতি দয়া করে না।’ অর্থাৎ যারা গরিব দুঃখীর প্রতি সদয় হয় না; আল্লাহ তা’আলা ও সে মানুষের প্রতি সদয় হবে না। তা হতে পারে দুনিয়াও আখিরাতে।

পরিশেষে…মানুষ স্রষ্টার সৃষ্টির অতুলনীয় সেরা জীব। সমাজের সম্পদশালীদের দিকে পুরোপুরি নির্ভরশীল না হয়ে কম-বেশি সবাই অসহায় মানুষের দিকে সুদৃষ্টি দিলে, তাদের জীবনমানে আসবে পরিবর্তন। দারিদ্র্যের মলিন মুখে ফুটবে অমলিন হাসি। ভুলে যাবে দুঃখ বেদনা।

তাইতো গান এর ভাষায় বলতে চাই-মানুষ মানুষের জন্য; জীবন জীবনের জন্য। যে সুখ দুঃখ ভাগ করে নেয়; সেই জন আসলেই ধন্য।”

সুতরাং মুসলিম উম্মাহ একে অপরের প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে প্রত্যেকেই ধন্য হতে চাই। তাই আল্লাহ তা’আলা গরিব-দুঃখী-অসহায় কে সহযোগিতা করতে সম্পদশালীদের এগিয়ে আসার তাওফিক দান করুন। আমিন।

এস আর সোহান
সদস্যঃ সেইভ দ্য ফিউচার স্কুল ৪ (মিরপুর শাখা)।