|

২৬ দিনের মধ্যে দুই দফায় তিন সন্তানের মা হলেন আরিফা

প্রকাশিতঃ ৩:৩৩ অপরাহ্ন | মার্চ ২৬, ২০১৯

২৬ দিনের মধ্যে দুই দফায় তিন সন্তানের মা হলেন আরিফা

শার্শা (যশোর) প্রতিনিধিঃ যশোরে ২৬ দিনের মধ্যে দুই দফায় সন্তান প্রসব করে তিন সন্তানের মা হলেন আরিফা সুলতানা ইতি নামে এক গৃহবধূ। বিরল এ ঘটনার জন্ম দেয়া ইতি যশোরের শার্শা উপজেলার শ্যামলাগাছি গ্রামের সুমন বিশ্বাসের স্ত্রী।

২৫ ফেব্রুয়ারি স্বাভাবিকভাবে একটি সন্তান জন্ম দেয়ার পর ২২ মার্চ তিনি সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে আরও দুটি সন্তানের জন্ম দেন। প্রথমবার বাড়িতে স্বাভাবিকভাবে একটি পুত্র সন্তান প্রসব করেন। এরপর যশোর শহরের রেল রোডস্থ আদ-দ্বীন হাসপাতালে একটি পুত্র ও একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দেন ইতি।

জানা যায়, অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর সাড়ে ছয় মাসের মাথায় ২৫ ফেব্রুয়ারির একটি পুত্র সন্তান জন্ম দেন ইতি। জন্মের পর নবজাতক ও মা অসুস্থ হয়ে পড়লে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়। এরপর প্রিম্যাচিউরড (অপরিণত) শিশুটিকে নিয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজের এনইউসিতে (নিউ নেটাল কেয়ার ইউনিট) রাখা হয়।



খুলনায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইতির পুনরায় আলট্রাসনোগ্রাফি করা হয়। তখন রিপোর্টে দেখা যায়, ইতির গর্ভে আরও দুটি সন্তান রয়েছে। গত ২২ মার্চ শুক্রবার ইতিকে যশোর রেলরোডস্থ আদ দ্বীন হাসপাতালে আনা হলে সিজারিয়ান ডেলিভারির মাধ্যমে দুটি সন্তান প্রসব করানো হয়। সিজারিয়ান ডেলিভারি করান ডাঃ শীলা পোদ্দার।

এ ব্যাপারে ডা. শীলা পোদ্দার বলেন, গর্ভে একাধিক বাচ্চা থাকলে সেটি আমরা একসঙ্গে প্রসব হতে দেখেছি। কিন্তু একবার একটি বাচ্চা প্রসবের ২৬ দির পর আরও দুটি বাচ্চা প্রসবের ঘটনা বিরল। প্রথমবার প্রসব হওয়া বাচ্চাটির পাশাপাশি সম্প্রতি প্রসব হওয়া বাচ্চা দুটি সুস্থ ও স্বাভাবিক রয়েছে বলেও জানান তিনি।

দেখা হয়েছে: 37
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল মোবাইল ০১৬১১-৫১৫৩২০
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকঃ ফয়সাল হাওলাদার মোবাইল ০১৭৩২-৩৭৯৯৮২
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ aporadhbartamofosal@gmail.com
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।