|

বেনাপোলে শোক দিবসে আলোচনা সভা

প্রকাশিতঃ ৯:২০ অপরাহ্ন | অগাস্ট ৩১, ২০১৯

বেনাপোলে শোক দিবসে আলোচনা সভা

মোঃ রাসেল ইসলাম, বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধিঃ স্থপতি বাঙ্গালী জাতীর গৌরব বাংলার বীরপুরুষ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদৎ বার্ষিকী উপলক্ষে বেনাপোলে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান পালন করা হয়েছে।

শনিবার ৩১ই আগস্ট বিকালে পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মামুন জোয়ার্দারের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম তৌহিদের সঞ্চালনায় বেনাপোল পৌর ছাত্রলীগের উদ্দোগে বেনাপোল পৌর বিয়ে বাড়ী সেন্টারের(বলফিল্ড)সামনে এই বিশাল আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব নুরুজ্জামান। বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন,পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহজ্ব এনামুল হক মুকুল,সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নাসির উদ্দিন,যশোর জেলা পরিষদ সদস্য ও শার্শা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি অহিদুজ্জামান অহিদ,উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন রাসেল,বেনাপোল ইউপি চেয়ারম্যান বজলুর রহমান,শার্শা,উপজেলা বাস্তহারালীগের সাধারন সম্পাদক মোহাম্মাদ আলী,স্বেচ্ছা সেবকলীগের সভাপতি জুলফিকার আলী মন্টু,পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক আহাদুজ্জামান বকুল,যুগ্ম আহ্বায়ক জসীম উদ্দিন,পৌর আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আলী কদর সাগর, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মহাতাব উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব মনিরুজ্জামান ঘেনা,প্রচার সম্পাদক আকবার আলী, সাবেক চেয়ারম্যান নওশের আলী, সাবেক যুবলীগ নেতা ফারুক হোসেন উজ্জল,সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আরিফ হোসেন রুবেল, আল-ইমরান,বড়আঁচড়া ওয়ার্ডের কামালসহ শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের ও সহযোগী সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দ।

জনাকীর্ণ বিশাল শোক সভায় প্রধান বক্তা আলহাজ্ব নুরুজ্জামান বলেন, ১৫ই আগস্ট ১৯৭৫ এর ঘটনা এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন আদর্শের দিক নিয়ে বিশদ ভাবে আলোচনা করেন। এভাবে একজন রাষ্ট্র প্রধানকে হত্যা করার মতো ইতিহাস দ্বিতীয়টি আর নেই। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে সামনে রেখে দেশকে উন্নয়নের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলস পরিশ্রম করে চলেছেন। আগামী দিনে উন্নয়নের ধারাকে ত্বরান্বিত করতে আগামীতে সংসদ নির্বাচনেও বর্তমান সরকারের উপর ভরসা রাখার অনুরোধ জানান।

আওয়ামীলীগ সরকারের আমলে এখন আর সারের জন্য কৃষক মরে না,বিদ্যুতের জন্য বাংলার জনগণ কে অন্ধকারে থাকা লাগে না।এই সরকারের আমলে শার্শা উপজেলায় আমূল উন্নয়ন করেছে শেখ আফিল উদ্দিন এমপি। সমগ্র বাংলাদেশের উন্নয়ন করাকে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল, তার সেই স্বপ্ন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে বাস্তবায়ন করছে।

উপস্থিত নেতাকর্মী ও জনগনকে উদ্দেশ্য করে বলেন আপনারা সাক্ষী আছেন সমগ্র শার্শা উপজেলায় কত পরিমান উনয়নের কাজ এমপি শেখ আফিল উদ্দিন করেছে। রাস্তা ঘাটসহ সকল স্থাপনায় তার ছোঁয়া লেগে আছে।শতভাগ বিদ্যুতায়ন কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা মেনে শেখ আফিল উদ্দিন এমপি আপনাদের ভোটে তৃতীয় বারের মতো নির্বাচিত হয়ে আগামীতেও আপনাদের পাশে থেকে সেবা করে যাবে।

তিনি হুসিয়ারী উচ্চারণ করে বেনাপোল পৌর মেয়রকে বলেন,শার্শা উপজেলাই কোন প্রকার গ্রুপিং সৃষ্টি করবেন না, যদি রাজনীতি করার ইচ্ছা থাকে মূল দলের সাথে যুক্ত হয়ে জনগণের সেবা করেন। অর্থ দিয়ে ও মামলা করে পৌরসভা নির্বাচন আটকে রেখেছেন,আপনি নিজে দাবি করেন বেনাপোল পৌরসভা অনেক কাজ করেছেন তবে আপনার ভয় কিসের নির্বাচন দিতে। আপনার এতই ক্ষমতা সাধারন একটি হাই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে জয়লাভ করতে পারেননি।

আপনার হেভিওয়েট প্রার্থী একজন মহিলার কাছে হেরে যাই। আপনি গ্রুপিং সৃষ্টি করে আওয়ামী লীগের ব্যানারে মিছিল মিটিং করে যাচ্ছেন আপনার এমন কর্মকান্ড জনগণ মেনে নেবে না। আপনার লজ্জা করেনা এই এমপি শেখ আফিল উদ্দিন এর হাত ধরে আওয়ামী লীগের নমিনেশন নিয়ে পৌরসভা মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন,এখন তার সাথে বেইমানি করে আপনি নিজে এমপি হতে চান,এজন্য আপনাকে বেনাপোলে মীরজাফর উপাধি দেয়া হয়েছে।

আলোচনা সভা শেষে ১৫ই আগস্টে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু সহ সকল শহিদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয় এবং গরীব দূস্থদের মাঝে খাবার বিতরন করা হয়।

দেখা হয়েছে: 40
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল মোবাইল ০১৬১১-৫১৫৩২০
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ aporadhbartamofosal@gmail.com
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।