|

ময়মনসিংহে ৩৫ প্রার্থীর মনোনয়ন অবৈধ, ৮১ প্রার্থী বৈধ

প্রকাশিতঃ ৯:২৪ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ০২, ২০১৮

মোঃ কামাল, ময়মনসিংহ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ময়মনসিংহের ১১টি আসনে ৮১ প্রার্থীর মনোনয়ন যাচাই বাছাইয়ে শেষে চুড়ান্ত ভাবে বৈধ ঘোষনা করা হয়েছে। অন্যদিকে বিভিন্ন কারনে জেলার ৩৫ জন প্রার্থীর মনোনয়ন অবৈধ বলে ঘোষনা করেছেন জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের জেলা রিটার্নিং অফিসার।

জানা যায়, গত ২৮ নভেম্বর দিনব্যাপী ময়মনসিংহের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ১১৬ জন প্রার্থী জেলা রিটার্নিং ও উপজেলা সহকারী রিটার্নিং অফিসারের কাছে মনোনয়নপত্র দাখিল করে ছিলেন।

রবিবার (২ ডিসেম্বর) সকাল ৯ টার থেকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জেলা রিটার্নিং ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মনোনয়ন চূড়ান্ত যাচাই বাছাই শুরু করেন। পরে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত এ প্রক্রিয়া শেষে জেলা রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় সূত্রে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়।।

এদিকে, চূড়ান্ত মনোনয়ন যাচাই বাছাইয়ে বাদপড়া ৩৫ জনের মধ্যে বেশির ভাগ প্রার্থীর হলফনামা অসম্পূর্ণতা থাকার কারন দেখিয়ে অবৈধ করা হয়। তবে মনোনয়নপত্র দাখিল করা ৫ জন উপজেলা চেয়ারম্যানের মনোনয়ন বাদ পড়েছে। তাদের বর্তমান দায়িত্ব থেকে অব্যাহতির পদত্যাগপত্র না থাকায় অবৈধ বলে ঘোষনা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।

যাদের মনোনয়ন অবৈধ হয়েছেন, তারা হলেন, ময়মনসিংহ-১ (হালুয়াঘাট-ধোবাউড়া) : আনোয়ার হোসেন, ময়মনসিংহ-২ (ফুলপুর-তারাকান্দা) : এমদাদুল হক খান, আবু বক্কর সিদ্দিক, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আবুল বাশার আকন্দ (বিএনপি)।

ময়মনসিংহ-৩ (গৌরীপুর) : এ কে এম আব্দুর রফিক (আ’লীগ বিদ্রোহী), ডা. মতিউর রহমান (আ’লীগ বিদ্রোহী), আলী আহম্মদ খান পাঠান সেলভী (আ’লীগ বিদ্রোহী), নাজনীন আলম (আ’লীগ বিদ্রোহী), শরীফ হাসান অনু (আ’লীগ বিদ্রোহী), ড. সামিউল আলম লিটন (আ’লীগ বিদ্রোহী), মোর্শেদুজ্জামান সেলিম (আ’লীগ বিদ্রোহী), উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আহাম্মদ তায়েবুর রহমান হিরণ (বিএনপি) গোলাম মোহাম্মদ (জাকের পার্টি)

ময়মনসিংহ-৪ (সদর) খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন (বিএনপি), আবু সায়িদ মহিউদ্দিন আহমদ (ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালাইন্স-এনডিএ), উপজেলা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম মো: ওয়ালিদ (বিএনপি)।

ময়মনসিংহ-৫ (মুক্তাগাছা) মো: আমজাদ হোসেন, জহিরুল ইসলাম (জাকের পার্টি), সোহেল মিয়া (কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ)। ময়মনসিংহ-৬ (ফুলবাড়ীয়া) : খন্দকার রফিকুল ইসলাম (জাতীয় পার্টি),

ময়মনসিংহ-৭ (ত্রিশাল) : উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন (বিএনপি) ও আব্দুর রাজ্জাক খান (স্বতন্ত্র)।

ময়মনসিংহ-৮ (ঈশ্বরগঞ্জ) : রুহুল আমিন মাস্টার (বিএনপি-বিদ্রোহী), উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাহমুদ হাসান সুমন (আ’লীগ বিদ্রোহী), মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ), আবুল বাসার (লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি)।

ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) : মোঃ আলমগীর কবির উজ্জ্বল খান (কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ), মোঃ আব্দুল কাদির (স্বতন্ত্র) ও মোঃ শহিদুল্লাহ (স্বতন্ত্র)।

ময়মনসিংহ-১০ (গফরগাঁও) : মো. ওবায়দুল্লাহ আনোয়ার বুলবুল (আ.লীগ বিদ্রোহী), ক্বারী হাবিবুল্লাহ বেলালী (জাতীয় পার্টি), মজিবর রহমান (জাতীয় পার্টি)। ময়মনসিংহ-১১ (ভালুকা) : অ্যাডভোকেট আমানউল্লাহ সরকার (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ) ও আশরাফুল (সতন্ত্র) ।

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com