|

রাজারহাটে খামারীদের মানববন্ধন- রাস্তায় দুধ ঢেলে প্রতিবাদ

প্রকাশিতঃ ৯:৫৬ অপরাহ্ন | জুলাই ৩০, ২০১৯

রাজারহাটে খামারীদের মানববন্ধন- রাস্তায় দুধ ঢেলে প্রতিবাদ

এ.এস লিমন, রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের রাজারহাটে মঙ্গলবার দুগ্ধ পল্লী সংগঠন দুধ বিক্রি ও খামারীদের বাঁচানোর দাবীতে মানববন্ধন ও রাস্তায় দুধ ঢেলে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। এতে উপজেলার প্রায় ৫শতাধিক গো-খামারীরা অংশ নেয়।

বিক্ষুব্ধ খামারীরা জানান, রাজারহাট উপজেলার সহ¯্রাধিক দুগ্ধ খামার থেকে প্রতিদিন গড়ে ১২/১৪ হাজার লিটার দুধ উৎপন্ন হয়। যা ব্র্যাক, আরডি সহ ৪টি চিলিং সেন্টারে সরবরাহ করা হত। সম্প্রতি মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশনায় এসব কোম্পানির দুধ ক্রয়-বিক্রয় স্থগিতাদেশ করার ফলে অত্র উপজেলায় খামারীদের কাছ থেকে দুধ ক্রয় করা বন্ধ হয়ে যায়।

ফলে ১০ থেকে ১৫ টাকা পানির দরে দুধ বিক্রি করেও মিলছে না ক্রেতা। এতে চরম বিপাকে পড়েছে গো-খামারীরা। এরই প্রতিবাদে ৩০ জুলাই মঙ্গলবার সকাল থেকে কোথাও দুধ বিক্রি করতে না পেরে খামারীরা হতাশায় রাজারহাট বাজারে প্রায় ২’শ লিটার দুধ রাস্তায় ঢেলে প্রতিবাদ ও মানববন্ধন করেছে।

মানববন্ধন পূর্ব বক্তব্য রাখেন -রাজারহাট দুগ্ধ পল্লী সংগঠনের সভাপতি ভবেন্দ্রনাথ মন্ডল মংলা, সাধারণ সম্পাদক হায়দার আলী, কোষাধ্যক্ষ আজিজুল হক, খামারী আঃ জলিল মাষ্টার, কৃপাসিন্দু, রতন কুমার মন্ডল,সুমন মিয়া, রনজিৎ কুমার রায় প্রমূখ। বক্তারা অবিলম্বে সরকারীভাবে দুধ ক্রয় কেন্দ্র স্থাপনের দাবী জানান।

অভিযোগ করেন-বিভিন্ন ব্যাংক ও এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করা এসব দুগ্ধ খামারীরা পড়েছেন চরম বিপাকে। ক্ষুদ্র খামারীদের উৎপাদিত দুধ বিক্রিতে বিকল্প ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন তারা।

খামারিদের সংগঠন রাজারহাট দুগ্ধ পল্লী সংগঠনের সভাপতি ভবেন্দ্রনাথ মন্ডল মংলা বলেন, ‘আমরা প্রতিদিন ১২ থেকে ১৪ হাজার লিটার দুধ উৎপাদন করে থাকি। দুধ বিক্রি করি ৪টি প্রতিষ্ঠানের কাছে। এ দিয়েই আমাদের জীবন-জীবিকা চলত। এখন মহামান্য হাইকোর্টের আদেশ মোতাবেক রংপুর ডেইরি (আরডি) ছাড়া বাকী প্রতিষ্ঠান আমাদের কাছ থেকে দুধ কেনা বন্ধ রেখেছেন। যা উৎপাদনের তুলনায় অনেক কম ক্রয় করে রংপুর ডেইরি।

এ ব্যাপারে রাজারহাট ব্র্যাক চিলিং সেন্টারের ইনচার্জ মোঃ আসলাম মোল্লা বলেন, মহামান্য হাইকোর্ট দুধ উৎপাদন ও কেনা-বেচায় নিষেধাজ্ঞা দেয়ায় গত ২৮জুলাই বিকাল থেকে দুধ কেনা বন্ধ রেখেছি। ব্র্যাক চিলিং সেন্টারের আওতায় এ উপজেলার ২৯৩জন খামারী প্রতিদিন ২হাজার লিটার দুধ বিক্রি করেছিল। তারা বর্তমানে চরম বিপাকে রয়েছে।

দেখা হয়েছে: 124
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ aporadhbartamofosal@gmail.com
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।