|

শরীয়তপুরে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের আয়োজনে মতবিনিময় সভা

প্রকাশিতঃ 6:46 pm | December 04, 2018

মো. মহসিন রেজা, শরীয়তপুরঃ

বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের আয়োজনে শরীয়তপুর জেলা সার্কিট হাউজের কনফারেন্স রুমে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জেলার স্থানীয় প্রিন্ট মিডিয়া ও ইলেট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের এর সভাপতিত্বে জেলা তথ্য কর্ম কর্তার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিচারপতি ও বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন।

এছাড়াও প্রধান অতিথির সফর সঙ্গী হিসেবে ছিলেন, বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের সচিব শাহ আলম বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) এর সিনিয়র রিপোর্টার খায়রুল ইসলাম কামাল।

এসময় সাংবাদিক নেতাদের মধ্যে ছিলেন, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি শহীদুল ইসলাম পাইলট, শরীয়তপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি আব্দুস সামাদ খান, সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, জেলা ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সভাপতি মোঃ রোকনুজ্জামান পারভেজ, জেলা মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি মোঃ ওয়াদুদ মিয়া, সাধারণ সম্পাদক বিএম ইশ্রাফিল, জেলা প্রেস ক্লাবের সহসভাপতি মোঃ শেখ খলিলুর রহমান, ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাধারণ সম্পাদক মোঃ শহীদুজ্জামান খান,সহ সিনিয়র সাংবাদিক চ্যানেল টুয়েন্টি ফোর টিভির জেলা প্রতিনিধি কাজী মোঃ নজরুল ইসলাম, বিএমএসএফ’র উপদেষ্টা মোঃ শফিকুল ইসলাম স্বপন, মাছরাঙ্গা টিভির কবিরুজ্জামান, এন টিভির আব্দুল আজিজ শিশির, বর্তমান এশিয়ার সম্পাদক মোঃ মাহবুবুর রহমান, দৈনিক হুংকার পত্রিকার সম্পাদক মোঃ হাবিবুর রহমানসহ প্রায় ৫০ জন সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, আমাদের দেশ স্বাধীন হওয়ার পর জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমান কার্যকরী ও বাস্তবমূখী আধাবিচারিক ও গবেষণা ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান তৈরী করে ১৯৭৪ সালে প্রেস কাউন্সিল এ্যাক্ট তৈরী করেন, ৩৫ বছরের বেশি সময় অতিক্রান্ত হয়েছে, বর্তমানে অবাধ তথ্য প্রবাহের যুগে প্রিন্ট মিডিয়ার সাথে ইলেকট্রনিক মিডিয়াতে সাংবাদিক বিস্তৃতি হয়েছে অনলাইন মিডিয়ারও বিস্তৃতি ঘটেছে। ১৯৭৪ সালের বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের আইন পুরনো হয়েছে তাই এ আইন পরিবর্তন, পরিবর্ধন ও পরিমার্জন প্রয়োজন হয়ে পড়েছে,।

বর্তমানে বিজ্ঞাপনের জন্য দৈনিক, সাপ্তাহিক, মাসিক, পাক্ষিক, ত্রৈমাসিক মিলিয়ে হাজারেরও বেশি পত্রিকা রয়েছে।
এছাড়াও অনলাইন পত্রিকা ও প্রকাশিত হচ্ছে ২৭টি টিভি মিডিয়া সংবাদ প্রচারের সাথে সম্পৃক্ত বলেও জানান প্রধান অতিথি।

মতবিনিময় সভার সার্বিক সহযোগিতায় করেন শরীয়তপুর জেলা প্রশাসন।