|

রাতে আধাঁরে নবনির্মিত সরকারি রাস্তা কেটে জমিতে রূপান্তর

প্রকাশিতঃ ৩:০১ অপরাহ্ন | নভেম্বর ০৯, ২০১৯

মদনে নবনির্মিত সরকারি রাস্তা কেটে জমি নির্মাণ

শহীদুল ইসলাম, নেত্রকোণাঃ নেত্রকোণা জেলার মদন উপজেলায় কাইটাইল ইউনিয়নের ঝাওলা গ্রামের কৈলাহাতী হাওরে ২০১৯ অর্থ বছরের ৮ মে.টন প্রকল্পে । নির্মিত রাস্তাটি দিয়ে সাধারণ জনগণ ও কৃষকের ফসলি জমির ধান উঠানোর এক মাত্র ভরসা ।

গত বুধবার গভীর রাতে একই এলাকার প্রভাবশালী কালাম (৪৫) সুমন (৩৬) দুলাল (৬০) বাবুল মেম্বার (৬০) এদের নেতৃত্বে ভেকু দিয়ে রাস্তাটি কেটে ফেলেছে বলে এক অভিযোগ পাওয়া যায়। সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রাস্তাটির মাঝ পথ কেটে দুই ভাগে বিভক্ত করে জমিতে রূপান্তর করে। ফলে এলাকায় সাধারণ কৃষক ও জনগণের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

কৃষক ফরিদ (৩৫) তাপস (৩৭) কায়েস (৪০) তৌহিদ মিয়া (৪৫) আবুল ইসলাম ডেন্ডু (৬০), ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান এ বছরেই এই রাস্তাটি নিমার্ণ করে সরকার ১৩০০ মিটার রাস্তা কৃষকের ফসলে জমির ধান উঠানোর জন্য, কিন্তু রাতে আধাঁরে রাস্তার পাশে জমি দাতারা কেনই বা কেটে ফেল্ল বা মাটি কাটা জন্য রাস্তা দিল এখন আমরা দিশে হারা হয়ে পরেছি।

আমাদের কিছু দিনের মধ্যেই জামির ধান কাটা শুরু হবে। কি ভাবে আমরা রাস্তা ছাড়া ধান তুলবো তা চিন্তায় আছি। তাই আমাদের দাবি ফসলি জমি কাটার আগেই যেন রাস্তাটি নিমার্ণ করে দেওয়া হয়। না হয় আমাদের পরিবার নিয়ে রাস্তায় নামতে হবে।

কাইটাইল ইউ. পি চেয়ারম্যান সাফায়েত উল্লাহ রয়েল এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জানান প্রকল্পের কাজ সরকারি হালট পযর্ন্ত নিমার্ণ করা হয় । বাকি রাস্তাটি কৃষক ও বিলের মাছ চাষিরা নিজেদের অর্থে নিমার্ণ করে ।

মদন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়ালিউল হাসানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগের প্রেক্ষিতে কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তবে উপজেলা বাস্তাবায়ন কর্মকর্তা ও ভূমি কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দেখা হয়েছে: 177
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন
  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ [email protected]
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।