|

শৈলকুপায় ৩টি হাত বোমাসহ বিএনপির ১০কর্মী আটক

প্রকাশিতঃ 3:45 am | February 07, 2018

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সন্ত্রাস ও নাশকতা করার উদ্দেশ্যে গোপন বৈঠক করার সময় ৩টি হাতবোমা, ১টি চাইনিজ কুড়াল, লাঠিশোঠা সহ ১০জনকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে উপজেলার ঝাউদিয়া আবাসন এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

এঘটনায় শৈলকুপা থানার এসআই ইমদাদ হোসেন বাদী হয়ে ১০জনের নামে ও অজ্ঞাত ৭০/৭৫ জনের বিরুদ্ধে সরকার উৎখাতের ও এই মামলা করেন।

পুলিশ জানায়, আসামীদের উদ্দেশ্য ছিল নাশকতামূলক কর্মকান্ড করা, নির্বাচিত গনতান্ত্রিক সরকারকে উৎখাত, জননিরাপত্তা বিপন্ন করা, আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাজে বাধা প্রদান, শান্তিপ্রিয় জনসাধারণের মধ্যে ভীতি সৃষ্টি, রাষ্ট্রের অর্থনৈতিক স্বার্থকে ক্ষতিগ্রস্থ করে জনগনের বিভিন্ন শ্রেনীর মানুষের মধ্যে ঘৃনা বা শত্রুতা মনোভাব সৃষ্টির মাধ্যমে উসকানী দেওয়া।

শৈলকুপা থানার তদন্ত কর্মকর্তা (ওসি) আক্কাস আলী জানান, ঝাউদিয়া আবাসন প্রকল্প এলাকায় সন্ত্রাস ও নাশকতা করার উদ্দেশ্যে গোপন বৈঠক চলছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করে।

আটককৃতরা হলেন- উপজেলার শিতালী গ্রামের রফিকুল (৫২),কোর্টপাড়ার আমিনুর রহমান (বাদশা) (৫০),রয়েড়া গ্রামের রফিকুল ইসলাম (৪০),নওপাড়ার আখের আলী (৪০),বগুড়া গ্রামের ফরিদ মুন্সী (৩০),আবাইপুর গ্রামের আব্দুর রহমান (৩৫),ছাইভাঙ্গা গ্রামের জিন্নাহ আলী (৩৪),উলুবাড়ীয়া গ্রামের শ্যাম (৪০),চর ডাউটিয়া গ্রামের খবির উদ্দিন ও নতুন মালিথিয়া গ্রামের মনোয়ার হোসেন (৪৮)।

এবিষয়ে মামলার বাদী এসআই এমদাদ হোসেন জানান, উপজেলার ঝাউদিয়া আবাসন প্রকল্প ব্রীজের দক্ষিণ পাশ থেকে গোপন বৈঠক করার সময় ৩টি হাতবোমা, ১টি চাইনিজ কুড়াল,লাঠি-সটাসহ বিএনপির ১০কর্মী কে আটক করা হয়। এঘটনায় সোমবার রাতে শৈলকুপায় থানায় মামলা হয়েছে। আসামীদের সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে।