|

কিশোরীকে গণধর্ষণের পর ছবি তুলে টাকা দাবি

প্রকাশিতঃ ২:৫৩ পূর্বাহ্ন | জানুয়ারী ২৬, ২০১৮

অনলাইন বার্তাঃ

পুরান ঢাকার চকবাজার এলাকায় বাসায় আটকে রেখে এক কিশোরীকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার রাতে ওই কিশোরীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে। নির্যাতিত কিশোরীর বাড়ি কামরাঙ্গীরচর এলাকায়। তার বাবা রিকশাচালক ও মা গৃহিণী।

কিশোরীর পরিবার জানিয়েছে সে ঘটনার ছবি তুলে অভিযুক্ত ব্যক্তিরা টাকা দাবি করছেন। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।  কিশোরীর এক আত্মীয় জানান, চকবাজারের কাজী রিয়াজ উদ্দিন রোডের একটি বাসায় ১৯ জানুয়ারি বিকেলে প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে যায় মেয়েটি। বাসাটি কিশোরীর প্রেমিকের বন্ধুর।

এ সময় এলাকার চার যুবক ওই বাসায় ঢুকে প্রথমে কিশোরীকে আটক করে। পরে প্রেমিক ও তার বন্ধুকে ভয় দেখিয়ে বাসার আরেকটি কক্ষে আটকে রাখে। অন্য একটি কক্ষে আটকে রেখে ওই চার যুবক ধর্ষণ করে কিশোরীকে।

এরপর ওই কক্ষটিতে কিশোরীর প্রেমিককে নিয়ে আসে তারা। ছেলেটি ও কিশোরীর অশ্লীল ছবি তুলে বাসা থেকে কিছু টাকা ও সোনার চেন নিয়ে যায় তারা। ঘটনা প্রকাশ করলে ছবি ইন্টারনেটের ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকিও দেয় ওই চার যুবক। প্রথমে ঘটনাটি চেপে যায় ওই কিশোরী। কিন্তু একপর্যায়ে ওই চার যুবক টাকা দাবি করে বসে। তখন কিশোরীটি তার মাকে ঘটনাটি জানায়। পরে কিশোরীকে যে বাসায় নির্যাতন করা হয়েছে, ওই বাসার মালিককে জানানো হয়।

বুধবার রাতে কিশোরীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়। এরপর চকবাজার থানায় অভিযোগ করা হলে বুধবার রাতেই স্থানীয় আলামিন, ইয়াছিনসহ তিনজনকে আটক করে পুলিশ।

চকবাজার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কামরুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে তিনি বলেন, তিনজনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে। -প্রথম আলো

দেখা হয়েছে: 126
সর্বাধিক পঠিত
ফেইচবুকে আমরা

  • উপদেষ্টা সম্পাদকঃ আফজাল হোসেন হিমেল
  • সম্পাদকঃ আরিফ আহমেদ
  • সহকারী সম্পাদকঃ সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী মোবাইল ০১৯১৬-৯১৭৫৬৪
  • প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি মোবাইল ০১৯১৬-২২৩৩৫৬
  • নির্বাহী সম্পাদকঃ মোঃ সবুজ মিয়া মোবাইল ০১৭১৮-৯৭১৩৬০
  • অফিসঃ ১২/২ পশ্চিম রাজারবাগ, বাসাবো, সবুজবাগ, ঢাকা ১২১৪
  • বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১৫-৭২৭২৮৮
  • ই-মেইলঃ aporadhbartamofosal@gmail.com
অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের।